কিছু কথা



এই সাইটে দেয়া সকল ইনকাম করার টিপস,প্রক্রিয়া/পদ্ধতি ও এখানে দেয়া ইনকাম করার সাইট সব বিশ্বস্ত । এখানে কোন ভুয়া টিপস বা সাইট নিয়ে পোষ্ট করা হয় না ।। ইনকাম করার সকল পদ্ধতি এখানে শিখানো হবে এবং সেই পদ্ধতি গুলো ১০০% সত্যি । যে সাইট গুলো সত্যি পেমেন্ট দেই শুধুমাত্র সেই সাইট গুলো থেকে কিভাবে ইনকাম করবেন তা নিয়ে এখানে পোষ্ট করা হয়। তাই এখানকার সকল ইনকাম করার রাস্তা আপনি নির্দিধায় অনুশরন করতে পারেন।

কোন সমস্যায় পরলে কমেন্ট করবেন, আর ছোট খাট হেল্প এর জন্য আমার দেয়া রিফারেল লিংক দিয়ে সকল ইনকাম করার সাইটে রেজিস্ট্রেশন করবেন ।
***নতুন নতুন ইনকাম করার ওয়ে শিখতে আমাদের সাথেই থাকুন।

DIY Headphones | How to make Headphones from Cardboard





You don't have a headphone? Watch this video and learn How to make Headphones from Cardboard and build headphones. DIY headphones making is real easy and anyone can do it. Headphones from Cardboard is very cool idea actually. We can make many thing by using cardboard. So Today we made a video about How To make Headphone At Home.

Diy Lighting for Plastic Bottle | How to make a night lamp with plastic ...



Need idea about Lighting for Plastic Bottles? Today we'll show you How to make a night lamp with plastic bottle. This is Diy Lighting for Plastic Bottle. This is just a lamp ideas for Night lamp from plastic bottle. Homemade LED night lamp making not so hard. 

Watch this full video and learn How to make a night lamp or bottle night lamp or DIY LED Lamp. This is just plastic bottle light and night lamp homemade.

How to Make Water Level Indicator With Alarm System At Home - Electronics Project



How to make a water level indicator is a science project to save water from overflowing. 

A water level indicator is used to show the level of water in an over head tank. This keeps the user informed about the water level at all times and avoids the situation of water running out when it is most needed.There are many videos on youtube But this one is unique because this water level indicator circuit also has an alarm feature. It not only indicates the amount of water present in the overhead tank but also gives an alarm when the tank is full.


You need some materiel for this project:
*Transistor BC547 -- 3 piece 
*Blue Led - 3 piece
*Red Led - 1 piece 
*Resistor 220 ohm - 3 Piece
*Buzzer - 1 Piece 
*9V Battery - 1 Piece
*9V Battery Clip - 1 Piece
*Some Wires
Circuit Diagram Links: https://circuitdigest.com/sites/defau...

How to make a Tractor | RC Tractor - Toy Tractor - DIY Tractor



This is a Simple tractor making video. We will tech you how to make a tractor. RC Tractor us just a toy tractor ant one can make it at home. 
Watch this video to learn how to make harvester electric tractor and how to make track. Simple remote control tractor from cardboard.

This is a diy project and a simple Harvester car making video. Anybody can build this tractor at home easy.

Materials Used:
---------------
1. bottles caps 
2. sticks from ice cream
3. Wheel
4. DC motor
5. battery (9v )
6. cardboard
7. tape {insulating }
8. RC board

কিভাবে আলু দিয়ে মোবাইল চার্জ করবেন দেখুন । Mobile charging with potato



আলু দিয়ে মোবাইল চার্জ করুন মোবাইল চার্জার ব্যতীত। আলু দিয়ে কি সত্যিই মোবাইল চার্জ করানো সম্ভব? হ্যা সম্ভব কি না তা নিজে যাচাই করে দেখুন। শুধু আলু দিয়ে নয় পেয়াজ দিয়েও চার্জিং করানো সম্ভব মোবাইল চার্জ। আমরা এই ভিডিওতে দেখিয়েছি কিভাবে আলু দিয়ে মোবাইল চার্জ করবেন। মোবাইল অথবা পাওয়ার ব্যাংক যেটাই হোক না কেনো আপনি নিশ্চিন্তে চার্জ করতে পারবেন ।ফোন চার্জ করুন আলু দিয়ে অথবা লেবু দিয়ে মোবাইল ব্যাটারি ফুল চার্জ করা সম্ভব আর । 

How to make a RC Boat Car | Car Drives on Land & Water - 4K



Boat car also known as Amphicar or Amphibious car. Boat Car can drive on land like a regular car and on water like a boat. We made a RC boat car so we can easily control the boat car.You can call boat car as  swimming car or floating car too.

How To Make a Boat Car?
We can easily make a toy  boat car at home. If you have any electric boat or electric car, then you can easily transform that into Boat-Car or water car.

How do you make a toy car?
First we have to make a car if you don't have any toy car at home then make one.

What is a boat car?
A car-boat is a boat or marine vessel built from, or powered by, an automobile chassis and engine. They have recently become well known in the United States media for being the vehicle ridden by a number of Cubans who have attempted to emigrate to the United States by water.

Material need to make a boat car:

1. DC Motor
2. Battery
3. LED
4. Styrofoam
5. Hard foam board
6. some wire
7. RC circuit

How to Make a Toy Motorcycle - Make a Bike at home



This is a simple Toy Motorcycle making video. Hello friends I am back with a another video about How to Make a Toy Motorcycle at home. DIY bike is a toy. This is a racing bike.

This is a mini electric bike for kids. So make a cardboard bike at home instead of buying kids pocket bike. This mini moto bike is very speedy too.

Material used -
1. A battery
2. Foamsheet
3. Ice cream sticks
4. Cotton bud
5. Tyres made by two duck tap 
6. Rubber band

Make Water Level Indicator With Alarm System At Home - Electronics Project

বিট কয়েন bitcoin ইনকাম করুন আর মোবাইল রিচার্জ করুন


আস্সা‌লামুয়ালাইকুম,
আমরা সবাই কম বেশি বিট কয়েন bitcoin সম্পর্কে জানি। তার পর ও যারা নতুন তাদের জন্য একটু জানাচ্ছি
বিট কয়েন bitcoin
বিট কয়েন bitcoin কি?

বিট কয়েন bitcoin হল ওপেন সোর্স ক্রিপ্টোগ্রাফিক প্রোটকলের মাধ্যমে লেনদেন হওয়া সাংকেতিক মুদ্রা। বিট কয়েন bitcoin লেনদেনের জন্য কোন ধরনের অর্থনৈতিক প্রতিষ্ঠান, নিয়ন্ত্রনকারী প্রতিষ্ঠান বা নিকাশ ঘরের প্রয়োজন হয় না। ২০০৮ সালে সাতোশি নাকামোতো এই মুদ্রাব্যবস্থার প্রচলন করেন। বিট কয়েন bitcoin লেনদেন হয় পিয়ার টু পিয়ার বা গ্রাহক থেকে গ্রাহকের কম্পিউটারে বা মোবাইলে। বিট কয়েন bitcoin সমস্ত প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয় অনলাইনে একটি উন্মুক্ত সোর্স সফটওয়্যারের মাধ্যমে অথবা কোন ওয়েব সাইটের মাধ্যমে।

Bitcoin এর দাম
বর্তমানে ১টি বিটকয়েনের মূল্য প্রায় ৭৫০.৬০ ডলার
অর্থাৎ 1 BITCOIN = $750.60
এ দাম প্রায় প্রত্যেক দিন বাড়ছে আর কমছে তাই কেউ এর সঠিক দাম বলতে পারবে না।

বিট কয়েন লেনদেন
বিট কয়েন লেনদেন অনেকটা পেইজা, পেপাল, মানি বুকার্স লেনদেন এর মত,
অথ্যাৎ আপনার একটা ওয়ারলেট বা বিট কয়েন জমার একাউন্ট থাকবে যেখানে আপনার সকল বিট কয়েন জমা থাকবে।
আপনি আপনার প্রয়োজন মত সেই কয়েন তুলতে পারবেন।

ওয়ারলেট বা বিট কয়েন জমার একাউন্ট তৈরি

১) ওয়ারলেট বা বিট কয়েন জমার একাউন্ট তৈরি করার জন্য এই লিংকে প্রবেশ করুন
২) রেজিস্ট্রেশন ফরম আসলে, রেজিস্ট্রেশন ফরমের
আপনার email,আপনার Password দিয়ে,Create Bitcoin Wallet এ ক্লিক করুন
৩) আপনার eMail এ গিয়ে আইডিটি ভেরিপাইড করুন
হয়ে গেলে ওয়ারলেট বা বিট কয়েন জমার একাউন্ট

বিট কয়েন bitcoin অ্যাড্রেস তৈরি
১) বিট কয়েন আইডি লগিন করে Setting এ গিয়ে Bitcoin Addresses এ ক্লিক করুন এখানে আপনার জন্য একটি অ্যাড্রেস তৈরি করা থাকবে, আপনি চাইলে সেটা ব্যবহার করতে পারেন।
বিট কয়েন bitcoin

বিট কয়েন bitcoin

অথবা নতুন অ্যাড্রেস তৈরি করতে 1) + Create New Address এ ক্লিক করুন

বিট কয়েন bitcoin

বিট কয়েন আর্ন করার জন্য এই এড্রেসস টা ব্যবহার করতে হবে
একটা কথা বলতে চাই।ইনকাম এর সাইট গুল তে রেফারেল এর একটা বেপার আছে যা আপনার ইনকাম কে কিছুটা বারিয়ে দেবে। সর্ব পরি এটা একটা এক্সট্রা ইনকাম এর জন্য। কেউ এটা করে রাতারাতি বর হতে পারবেন না। সবচে মজার বেপার হচ্ছে এতাতে কোন ইনভেস্টমেন্ট করতে হয় না। স কোন রিস্ক নাই PTC সাইট গুলার মত।
এবার মুল কথায় আসি
মোবাইল এর যে রিচার্জ সাইট আছে সেটা হল
https://www.bitrefill.com/bangladesh/
রিচার্জ এর জন্য আপনাকে ওপরের লিঙ্ক এ ক্লিক করতে হবে। করলে নিচের মত একটি পেজ আসবে

বিট কয়েন bitcoin

যে অপারেটর এ রিচার্জ করবেন সেটাতে ক্লিক করুন। আমি এয়ারটেল সিলেক্ট করেছি
বিট কয়েন bitcoin

নাম্বার দিন check এ ক্লিক করুন। তার পর এর পেজ এ আপনার ইমেইল এড্ড্রেস দিন আপনার এমাউন্ট দিন

বিট কয়েন bitcoin

পেজ এ ডিটেইল দেয়া থাকবে। ইমেজ এর এড্রেস এ দিবেন না। কারন ওইটা আমার অ্যাড্রেস
বিট কয়েন bitcoin

বিট কয়েন bitcoin

1-10 মিনিট এর মধ্য আপনার ফোন এ টাকা চলে যাবে

যে  দুটি সাইটের মাধ্যমে বিট কয়েন bitcoin ইনকাম করব একটির নাম Freebitco.in

 এখানে ক্লিক করুন  আর সাইন আপ করে নিন।

এর মাধ্যমে আপনি ১ ঘন্টা পর পর ৫০০ সাতশি ইঞ্চমে করতে পারবেন। এখান থেকে আপনাকে প্রতি ঘন্টায় একটি করে ক্যাপচা দেওয়াহবে। ক্যাপচা ঠিকঠাক মত পুরন করবেন। আপনি সাইটে রেজিস্ট্রেশন এর সময় স্রেফআপনার বিটকয়েন অ্যাড্রেস লাগবে। এখানে আপনি প্রতিবার ক্যাপচা পুরন করলেফ্রি প্লে তে৫০০ সাতশি – ৫০০০০+ আর্ন করতে পারবেন।

এছাড়া অন্যান্য উপায়ে কয়েন বৃদ্ধি করতে পারবেন, তবে এখন সুধুমাত্র ফ্রিপ্লে করাই ভাল এখান থেকে আপনি ১০০০০ হলে কয়েন উইথড্র করতে পারবেন তবে শুধু রবিবার এ।আর কয়েন উইথড্র করলে কয়েন সরাসরি আপনার coinbase অ্যাকাউন্ট এ যুক্ত হবে।

বিট কয়েন bitcoin



 এখানে ক্লিক করুন

বিঃদ্রঃ যারা বেশি আর্ন করতে চান তারা অনেক গুলো একাউন্ট খুলতে পারেন।

আজ এ টুকুই সবাই ভাল থাকবেন।

আগামিতে আরো নতুন কিছু নিয়ে আসবো। ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন।

যেভাবে বিট কয়েন ইনকাম করবেন

বিট কয়েন Bitcoin

সকলকে সালাম ও শুভেচ্ছা।
আসসালামু আলাইকুম।
বিট কয়েন Bitcoin

যেভাবে বিট কয়েন Bitcoin ইনকাম করবেন
এই পোষ্টের উদ্দেশ্য যারা বিট কয়েন Bitcoin আয় করছেন তারা তাদের আয়কে বাড়ানো আর যারা এখনও চেষ্টা করেননি তারা একবার চেষ্টা করে প্রমাণ নিজের চোখে দেখতে পারেন।
বিট কয়েন Bitcoin বর্তমান কারেন্সি এর একটি আলচিত বিষয়। পৃথিবীতে সবচেয়ে দামী কারেন্সি হচ্ছে এই বিট কয়েন Bitcoin। বিট কয়েন নিয়ে কিছু ধারনা নিচে দেয়া হল।
বিট কয়েন কি? 
বিট কয়েন Bitcoin হল একটি অনলাইনকারেন্সি সিস্টেমের মুদ্রা।
এই কারেন্সি সিস্টেম কে ক্রিপ্টোকারেন্সি বলে।একে দেখা অথবা ছোঁয়া যায় না। এটি তৈরি হয় অনলাইন এ , এবং ব্যবহারিতও হয়অনলাইন এ ডিজিটাল মাধ্যমে। বিটকয়েন পুরোপুরি আমাদের দ্বারাই নিয়ন্ত্রিত, এটি কোন প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তি দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয় না। আপনি নিজেই অনলাইনথেকে এটি রোজগার করতে পারবেন।
বিটকয়েন সম্পর্কিত কিছু এককঃ
1 uBTC = 0.000001 BTC
1 mBTC = 0.001 BTC
1 satoshi = 0.00000001 BTC
বিট কয়েন Bitcoin
বিটকয়েন আর্নিং বিটকয়েন আর্নিং এর কয়টি মাধ্যম আমি জানি তা হল, মাইনিং (mining) এবং কল (faucets) মাইনিং এ আপনার নির্দিষ্ট একটি বিটকয়েনের অংশ আপনাকে ইউজ করতে হবে।
বর্তমানে এটি অনেক হার্ড একটি প্রসেস বিটকয়েন আর্ন করার জন্য।
আরদ্বিতীয় টি হল সবচেয়ে সহজলভ্য উপায় যা বর্তমানে আমাদের মত ইউজার কেবিনামুল্যে বিটকয়েন আর্ন করার সুযোগ দেয়। তবে এটি কতদিন থাকবে তা বলামুশকিল।
এইবার আসি কিভাবে ফ্রীতে বিটকয়েন আয় করবেন।
বিটকয়েন ফ্রীতে আয় করার জন্য প্রায় ৩০০০ এর উপর সাইট রয়েছে।
যারা তাদের ওয়েবসাইটএ ভিসিট করে কেপচা পূরণ করার জন্য বিটকয়েন প্রদান করে থাকে।
এটা সাধারণত ১০০-১০০০০০ সাতোশি প্রদান করে থাকে। এখানে বলে রাখা প্রয়োজন যে বিটকয়েনের একক সাতোশি নামে পরিচিত।
একটি ওয়েবসাইট এ কেপচা পূরণ করে অল্প কিছু আয় করা যায়।
আর তাই যত বেশি ওয়েবসাইট এ কাজ করবেন আয় তত বাড়বে। আজ আমি আপনাদের আইরকম কয়েকটি সাইট এর সাথে পরিচয় করিয়ে দিব যারা নিয়মিত payment করে থাকে।

বিট কয়েন Bitcoin

ভল বিট কয়েন Bitcoin ইনকাম করার সাইট 
১. freebitco.in এটি একটি Faucet জাতীয় সাইট।
এখান থেকে আপনাকে প্রতি ঘন্টায় একটি করে ক্যাপচা দেওয়াহবে। ক্যাপচা ঠিকঠাক মত পুরন করলে আপনি সাইটে রেজিস্ট্রেশন এর সময় স্রেফআপনার বিটকয়েন অ্যাড্রেস লাগবে।
এখানে আপনি প্রতিবার ক্যাপচা পুরন করলেফ্রি প্লে তে বিটকয়েন আর্ন করতে পারবেন।
এছাড়া অন্যান্য উপায়ে কয়েন বৃদ্ধি করতে পারবেন, তবে এখন সুধুমাত্র ফ্রিপ্লে করাই ভাল এখান থেকে আপনি 54.6 ubtc হলে কয়েন উইথড্র করতে পারবেন। আর কয়েন উইথড্র করলে কয়েন সরাসরি আপনার bitcoin address অ্যাকাউন্ট এ যুক্ত হবে।
২. Bitcosters.com (এটিও freebitco.in এর মত সাইট/

ইনকাম দ্বিগুণ করুন Youtube MCN দিয়ে। ScaleLab bangla review

ScaleLab Bangla Review. ইনকাম বাড়িয়ে নিন  দ্বিগুণ করুন Youtube MCN দিয়ে। Youtube MCN কী? MCN এ যুক্ত হলে আমাদের লাভ না ক্ষতি! কিভাবে MCN Apply করতে হয় ? 

ScaleLab Bangla Review
ScaleLab Bangla Review



 ScaleLab এ ১০০% এপ্রোভাল লিঙ্ক Join Now

হ্যালো বন্ধুরা, কেমন আছেন সবাই আসা করি ভালো আছেন।

আজকে আমি আপনাদের এমন একটি জিনিস এর সম্পর্কে জানাবো যেটা নিয়া বর্তমানে বাংলাদেশ এ অনেক মাতা-মাতি সেটা হল “Youtube MCN”। কিন্তু হয়তো অনেকে জানা না MCN জিনিষ টা আসলে কী? এইটা কীভাভে কাজ করে!MCN এ এড হলে আমাদের লাভ না ক্ষতি!
MCN এ কীভাবে Approve পেতে হয়? এই সকল বিশয় নিয়ে আজকে আমারা জানবো।

তাহলে চলুন মূল আলোচনায় চলে যাওয়ার আগে কিছু কথা বলে নেই টিউন টা ভাল কড়ে পড়ে-বুজে শুনে Apply করবেন। না বুজে কোন কাজ করবেন না।

 N.B:|যারা ভাবছেন ও মণে হয় (Creator MCN) এর কথা বোলবে তাদের ভুল দারণা. Please তারা দূরে থাকুন।কারণ আমি ওদের মতো বাটপাড় নই।

যারা Begainer এবং expert বাইয়েরা আসেন তারা ভাল করে বুজে নিয়ম গুলো মেনে চেক করে তারপর Apply করবেন।

“মাল্টি-চ্যানেল নেটওয়ার্ক” কি?
“মাল্টি-চ্যানেল নেটওয়ার্ক” শব্দটির সংক্ষিপ্ত রুপ হল“এম.সি.এন” (MCN). একে সার্চ ইঞ্জিনের ভাষায় “ইউটিউব পার্টনারশিপ নেটওয়ার্ক” বলা হয়ে থাকে।
“মাল্টি-চ্যানেল নেটওয়ার্ক” বা “ইউটিউব পার্টনারশিপ নেটওয়ার্ক”এমন একটি যা কিনা ইউটিউব এর মতো প্ল্যাটফর্মের সাথে কাজ করে।
মূলত“মাল্টি-চ্যানেল নেটওয়ার্ক” বা “ইউটিউব পার্টনারশিপ নেটওয়ার্ক” গুলো সারা দুনিয়ার মাল্টিপল/একাদিক ইউটিউব চ্যানেনলর সাথে অদিযুক্ত হয়ে কন্টেন্ট ক্রিয়েটোড়/ইউটিউব পাবলিশারদের নানাবীড সহায়তা,পণ্য, ক্রয়-প্রোমোশন,প্রোগ্রামিং,ফাণ্ডীং,পাঠনার ম্যানেজমেণ্ট,ডিজিটাল রাইট ম্যানেজমেণ্ট,মনিটাইজেশণ/সেলস, ভিসিটর ডেবলপম্যানট ও চ্যানেলেএর ভিডিও উচ্চ সি.পি.এম. বিজ্ঞাপন শো করিয়ে রাজশের শতকরা বিনিময় করে থাকে।

তথ্য সংগৃতঃ
https://en.wikipedia.org/wiki/Multi-channel_network
https://support.google.com/youtube/answer/2737059?hl=en

মোট কথা, “MCN”হল“ইউটিউব অনুমদিত” গুগল অ্যাডসেন্স এর মত একটা প্লাটফম যেখানে ইউটিউব পাবলিশাররা গুগল অ্যাডসেন্স এর চেয়ে বেশি কিছূ সুযোগ সুবিধা ভোগ করে এবং ইউটিউব পাবলিশারদের ইনকাম গুগল অ্যাডসেন্স এর চেয়ে অনেকগুনে ব্রিধি পায়।

এমনকি “MCN” এর সকল আভন্তরিন ও বাহ্যিক্ক কার্যাবলী “ইউটিউব অনুমদিত”কতগুলো প্রথিষ্টিত সারভিস প্রবাইডারের মাধ্যমে পরিচালিত হয়, যারা প্রতোকটা“MCN”এর সাথে জড়িত থাকে ইউটিউব পাবলিশারদের সার্বিক উন্নয়নে নিয়জিত থাকে।

ScaleLab Bangla Review
ScaleLab Bangla Review



ScaleLab Bangla Review

আমি আজকে আলোচনা করবো scalelab নিয়ে। scale lab হচ্ছে একটা multi-channel network for YouTube channels।

বন্ধুরা multi-channel network কি তা সম্পর্কে আমি উপরে যথেষ্ট লিখেছি আসা করি বুঝতে পেরেছেন।

এখন অনেকের মনে প্রশ্ন জেগেছে এই সাইট কি Trusted কিনা বা এইটা কোন দেশের সাইট?এর Founder কে?CEO কে?Website এর valu কত? এই সব গুলো তথ্য জানতে এই লিঙ্ক এ ক্লিক করুন তাহলে সব জানতে পারবেন।
http://www.scamadviser.com/check-website/scalelab.com

এখন অনেক এ বলতে পারেন এইটা যে “Youtube Certifaid“এর প্রমান কি?

অনেক এ হয়তো জানেন http://www.socialblade.com নাম এ একটা সাইট আসে যেইখানে প্রতিদিন এবং প্রতি মাসের updated একটা লিস্ট প্রকাশিত করে সেখানে Top Youtube Mcn Network এবং Top youtube Channel এর লিস্ট থাকে।

Firstly, http://www.socialblade.com এ গিয়ে Top List ক্লিক করার সাথে সাথে একটা লিস্ট শো করবে সেইখানে দেখতে পারবেন Top 250 Youtube Networks সেইটাতে ক্লিক করবেন তারপর দেকবেন একটা লিস্ট আসবে টপ Top Youtube Mcn Network এর এটি “World Wide” Ranking দেখাবে সেইখানে 17 নাম্বার লিস্ট এ দেকবেন scale lab

তারপর সেটি তে ক্লিক করবেন তাহলেই দেখতে পারবেন ওদের Membar কতো,ভিউআর কতো এবং সাবস্ক্রাইবার কত।এই সব গুলো জিনিষ দেখার পর মনে হয় আপনারা বুজতে পারবেন কত ভাল মানের একটি Mcn Network এই scale lab

 “Scale lab” এর সাথে যুক্ত হলে যেই সকল সুযোগ সুবিদা গুলো পাবেন তা নীচে ঊল্লেখ করা হোলো:–


১)“Scale lab” এর সাথে যুক্ত হলে টাকা তোলার জন্য কোন Pin verification এর প্রয়োজন হয় না।

২)“Scale lab”এর সাথে সংযুক্ত হলে“Scale lab”আপনাকে একটা ড্যাশবোর্ড প্রধান করা হবে শেখানে গুগল অ্যাডসেন্স “হোসটেড অ্যাকাউন্ট” এর
মত শকল রিপোর্ট দেকতে ও জানতে পারবেন।
সেজন্য আলাদা করে গুগল অ্যাডসেন্স “হোসটেড অ্যাকাউন্ট” তরী করার দরকার নেই।

৩)“Scale lab”চ্যানেল উনুমদিত পেলে অটোমেটিক মনিটাইজ এর জন্য পার্টনারশিপ করে নিবে।

৪)গুগল অ্যাডসেন্স থাকা অবস্তায় কেও চ্যানেল “Scale lab”- এ সংযুক্ত করতে চাইলে সেটা শম্বব হবে। আর জেদিন থেকে “Scale lab”উক্ত
চ্যানেল উনুমদিত করে দিবে সেদিন থেকে গুগল অ্যাডসেন্স “হোসটেড অ্যাকাউন্ট” এর সাথে কোন প্রকার সম্পর্ক থাকবেনা।সেদিন থেকে সকল
আরনিং রিপোর্ট এবং আনালাইসিস রিপোর্ট “Scale lab” ড্যাশবোর্ড এ প্রদর্শিত হবে।

৫)“Scale lab”- এর চ্যানেল অনুমদন এর নিয়ম মতাবেক চ্যানেনলর মেয়াদ,ভিউ ও সাবস্ক্রাইবার সংখা সঠিক
নতুন চ্যানেল ও সংযুক্ত করতে পারবেন।সেজন্য গুগল অ্যাডসেন্স “হোসটেড অ্যাকাউন্ট” এর সাথে পার্টনারশিপ থাকতে হবে এমন কোন নিয়ম
নাই।

৬)আপনারা জানেন যে,কোন কারনে আপনার ইউটিউব চ্যানেলটি যদি কখনো সাসপেন্ড হয় তাহলে গুগল সেই অর্জিত মুনাফা বেশীরভাগ সময়
দেয়না কিন্তু আপনার চ্যানেল যদি “Scale lab” এর থাকা সময় সাসপেন্ড হয় সেই কাঙ্ক্ষিত অর্জন করা মুনাফা “Scale lab” প্রদান করবে.
অর্থাৎ চ্যানেল হয়ে গেলেও চ্যানেল সাসপেন্ড হওয়ার পূর্ববর্তী মুহূর্ত পর্যন্ত কষ্টের উপার্জিত ইনকাম “Scale lab“এল ড্যাশবোর্ড এর রিপোর্ট
অনুযায়ী আপনার প্রদানকৃত পেমেন্ট অ্যাকাউন্ট এ যথাক্রমে পেয়ে যাবেন।

৭)”Scale lab”- এ চ্যানেল মনিটাইজ করার জন্য যে কোন দেশের নাম এবং লোকেশন দিতে পারেন।বাংলাদেশ দিলে ও কোন সমস্যা নাই।

৮)হ্যাঁ অবশই। “Scale lab”- এর অন্তভুকক্ত শকল চ্যানেল এর সকল ভিডিও তে গুগল অ্যাডসেন্স এর (৪)চার প্রকার অ্যাড ফরম্যাট ছারাও
অতিরিক্ত (২) দুই প্রকার মোট (৬) প্রকার অ্যাড ফরম্যাট ভেইয়ারদের কাছে প্রদরশন করা হবে(২) দুই প্রকার অ্যাড ফরম্যাট এর নাম
হলোঃ

             ১)”নন –স্কিপ্যাবল ভিডিও অ্যাড “অর্থাৎ আপনার ভিউয়ার যদি আপনার ভিডিও টি দেখতে চায় অব্যশই তাকে নন-স্কিপ্যাবল ভিডিও অ্যাড
টি দেখার পরে আপনার ভিডিও টি দেখতে হবে।বিষয়টা হল সেই ভিডিও অ্যাডটি স্কিপ করার কোন অপশন সে পাবে না।
            ২) “লং নন –স্কিপ্যাবল ভিডিও অ্যাড “অর্থাৎ দীর্ঘ যেমন:১ মিনিট/১০:৩০ সেকেন্ড /২ মিনিট সময়ের অ্যাড ফরম্যাট চ্যানেলের ভিডিও
গুলোতে প্রদর্শিত হবে।
এমনকি এই অ্যাড ফরম্যাটটিতেও কোন প্রকার স্কিপ করার অপশন ভিউয়ার পাবে না।

৯) গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাড এর পাশাপাশি“Scale lab” এর হাই সি.পি.এম. রেটের অ্যাড দেখানো হবে।

১০)যেহেতু “Scale lab”অ্যাডসেন্স বিজ্ঞাপনের পাশাপাশি হাই সি.পি.এম. রেটের বিজ্ঞাপন দেখানো হবে সেক্ষেত্রে অ্যাডসেন্স ইনকাম এর চেয়ে কম
আরনিং হওয়ার সম্বাবনা 100% নাই। বরং “Scale lab” এর হাই সি.পি.এম. বিজ্ঞাপন প্রদর্শনের জন্য ২গুন/৩গুন ইনকাম বেড়ে গেলেও অবাক
হওয়ার কিছু নাই।

১১)“Scale lab”- এ অন্তভুক্ত প্রত্যেকটা চ্যানেলের পাবলিসারদের প্রমোশন এর পাশাপাশি “MCN”- টীম আলাদাভাবে চ্যানেল এর ভিউ,সাবস্ক্রাইবার ও কমিউনিটি ইত্যাদি ডেভেলপমেন্ট করে থাকে যার ফলে পাব্লিশেরদের আরনিং অনেকাংশে বেরে যায়।

১২)“Scale lab”-এর সাথে ইউটিউব এর অনুমদিত যে যে
সার্ভিস প্রভাইডার গুলো সার্বক্ষণিক কাজ করে সেগুলো হলঃ-
 http://epoxy.tv
http://www.audiomicro.com/royalty-free-music
 http://www.epidemicsound.com
 http://vidcon.com
 https://www.tubebuddy.com
 http://genatomic.com
https://www.spreadshirt.com
 Biggest Channel Development Conversation Community
 Video Claims Apps
 Study Forum and Blog
 Brands Create Energy through Conversation Study Centre

১৩)“Scale lab” কেও যদি আপনার ভিডিও চুরি করে তাহলে ভিডিও ক্লেইম সফটওয়্যারের এর মাধ্যমে ইউটিউব সাপোর্ট টিমের কাছে সরাসরি ক্লেইম নোটিশ পাঠাতে পারবেন।যা কিনা “Scale lab” এর ইউটিউব সাটিফাইড সাপোর্ট টিম সাথে সাথে অ্যাকশন নিয়ে সেই চ্যানেল স্ট্রাইক দেয়।

১৪)প্রথম চ্যানেলটি অনুমধন পেয়ে গেলে সেই চ্যানেল এর
“Scale lab”এর ড্যাশবোর্ড থেকে বাকি চ্যানেল গুলো অ্যাড করিয়ে নিতে পারবেন।

১৫)“Scale lab” Ip Address জনিত কোন প্রবলেম নেই।যত খুশি তত অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন।যেই কোন পিসি বা মোবাইল দিয়া Login করতে পারবেন।

১৬)ডলার উত্তোলন করার সর্বনিম্ন কোন পরিমাণ নেই।আপনি যদি ১ ডলার ইনকাম করেন মাস শেষে ১ ডলার-ই ১ ডলার উত্তোলন করতে পারবেন।

১৭)”Scale lab“এর পাব্লিশাররা ১৫০,০০০+ ফ্রি ষ্টক ট্রাকস ও ৩০০,০০০+ সাউন্ড ইফেক্ট’স ব্যবহার করতে পারবেন।

১৮)“Scale lab”পাব্লিশারদের জন্য ৮ টা পেমেন্ট সিস্টেম এর মাধ্যমে টাকা নিতে পারবেন।সবচাইতে ভালো সুবিদা হল আপনি চাইলে টাকা,ডলার,রুপি,দিনার আপনার যেই ভাবে দরকার সেই ভাবে নিতে পারবেন।

১৯)অরিজিনিয়াল ভিডিও এর কপির কন্টেন্ট আইডি ইউটিউব থেকে নিয়ে অতিরিক্ত মুনাফা অর্জনের জন্য মনিটাইযেশন করার বাবস্থা করে থাকে।

২০)এই খানে গুগল অ্যাডসেন্স এর মতো “Payee Name” এর কোন জামেলা নেই।যেকোনো সময় যে কোন অ্যাকাউন্ট দিয়ে টাকা তুলতে পারবেন।
এই সুবিদা গুলো পাবেন তাছাড়াও আরও অনেক সুবিদা পাবেণ।সেই সুবিদা গুলো “Scale lab” এ অ্যাড হলে বুজতে পারবেন।

 এখন আমারা জানব “Scale lab” এ Approve পেতে হলে কি কি থাকা প্রয়োজন:


১)আপনের চ্যানেল এ লাস্ট ৩০ দিন এ ১০০০ ভিউ এবং ১০ টা সাবস্ক্রাইবার অর্জন করতে হবে।

২)আপনের চ্যানেল এ কোন প্রকার “Copyright Strick” থাকলে Approve হবে না।

৩)ইউটিউব চ্যানেল এর লোগো এবং চ্যানেল আর্ট থাকতে হবে।
৪)ভিডিও ফুল উইনিক থাকতে হবে।দেখা যায় আপনি একটি ভিডিও একটু কেটে এডিট করে ইউটিউব আপলোড করলেন অ্যাডসেন্স ধরতে পারলো না কিন্তু “Scale lab” তা দরে ফেলবে।তাই খুবি সতর্ক থাকবেন।

৫)ইউটিউব চ্যানেল লেআউট Customaiz করতে হবে।

৬)সাবস্ক্রাইবার এবং লাইক Button Hide করে রাখলে হবে না।

৭)চ্যানেল টি নাম্বার ভেরফাই করতে হবে।

এই সকল নিয়মাবলি মেনে অ্যাপ্লাই করলে আশা করি Approve পাবেন।

 এবার আশি scalelab payment System নিয়েঃ


১)“Scale lab”পাব্লিশারদের জন্য ৮ টা পেমেন্ট সিস্টেম এর মাধ্যমে টাকা নিতে পারবেন।সবচাইতে ভালো সুবিদা হল আপনি চাইলে টাকা,ডলার,রুপি,দিনার আপনার যেই ভাবে দরকার সেই ভাবে নিতে পারবেন।

২)৮ টা পেমেন্ট সিস্টেমঃ
*Check-(উত্তোলোন সর্বনিম্ন ১০০ ডলার)
*Direct Deposit-(শুধু অ্যামেরিকার জন্য)(উত্তোলোন সর্বনিম্ন ১০০ ডলার)
*Paypal-(উত্তোলোন সর্বনিম্ন ১ ডলার)
*International Wire Transfer-(শুধু নন অ্যামেরিকার জন্য) (উত্তোলোন সর্বনিম্ন ১০০ ডলার)
*WebMoney-(উত্তোলোন সর্বনিম্ন ১ ডলার)
*Yandex.Money-(উত্তোলোন সর্বনিম্ন ১ ডলার)
*QIWI Wallet- (উত্তোলোন সর্বনিম্ন ১ ডলার)
*বর্তমানে payonner অ্যাড করা হইসে।-(উত্তোলোন সর্বনিম্ন ১ ডলার)

৩)আমরা জানি যে ইউটিউব প্রতি মাশের ১০ তারিখ কারেন্ট বালেন্সে চূড়ান্ত করে।ইউটিউব চুক্তি অনুযায়ী “Scale lab” এর পুব্লিশারদের ইনকাম চূড়ান্ত করে উক্ত মাসের ১৫ তারিখ এ।
“Scale lab” পরবর্তী মাশের ১-৫ তারিখ ড্যাশবোর্ড এর রিপোর্ট অনুযায়ী পুব্লিশারদের পেমেন্ট দিয়ে থাকে। যদি ও একটু দেরি তে দায় তা ও ভাল কারন অ্যাডসেন্স এর মত এত বেশি সময় দরে Pending এ রাখে না।

এইবার আমরা শিখবো কিভাবে “Scale labApply করতে হয়ঃ


১)প্রথমে এই scalelab.com ওয়েবে যাওয়ার পরে “Join Now“বাটনে ক্লিক করতে হবে।

২)“Apply Now With YouTube” ক্লিক করে আপনের চ্যানেলের ইমেইল টি দিয়ে login করতে হবে যে চ্যানেল টি “Scale lab”এ join করাতে চান সেটি সিলেক্ট করতে হবে।

৩)“First Name”ও“Last Name”এ আপনের নিজের নাম লিখতে হবে।

৪)তারপর ট্রামস অ্যান্ড কন্ডিশনের “I agree”সাথে চেক-মার্ক/টিক চিহ্ন দিয়ে “APPLY NOW”এ ক্লিক করতে হবে।

৫)“APPLY NOW”এ ক্লিক করার পরেই আপনের চ্যানেল এর ইমেইলটি তে একটি মেইল আসবে।এই মেইল টি আসলে বুজবেন আপনের চ্যানেল APPLY হয়েসে।

৬)৪৮ ঘণ্টার মধ্যে“Scale lab”চ্যানেল অনুমোধন দিলে আপনাকে আরেকটি মেইল দিবে এবং Approve না পেলে ও তা জানিয়ে দিবে।যারা Approve পাবেন তাদের আরেকটি মেইল এ বলে দিবে কিবাবে জয়েন করতে হয়।তারা image আঁকরে দিয়ে দিবে দেখলেই বুযতে পারবেন।

৭)ইমেইল আসা ধারাবাহিক নির্দেশনা অনুযায়ী ইউটিউব ড্যাশবোর্ড থেকে কনফার্ম করার পড় “Scale lab” অটোমেটিকভাবে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই তৃতীয়ভারের মত একটি ইমেইল পাঠাবে।উক্ত ইমেইলটির “LOG INTO YOUR DASHBOARD” অপশনটিতে ক্লিক করার পর নিজের ইচ্ছা অনুযায়ী Password দিবেন।(মুলত Password টি হল “Scale lab” এর ড্যাশবোর্ড লগইন করার Password)।

৮)Password দিয়ে “Scale lab”ওয়েবসাইটের লগিইন এ ক্লিক করে চ্যানেল এর ইমেইল দিয়ে ড্যাশবোর্ড এ প্রবেশ করতে পারবেন।এর পর থেকে এই ইমেইল অ্যান্ড Password দিয়ে “Scale lab”প্রবেশ করতে পারবেন।

৯)ড্যাশবোর্ড পাওয়ার সাথে সাথে চ্যানেল এর শকল রিপোর্ট দেখতে পারবেন কিন্তু ৭২ ঘণ্টা পর পর চ্যানেল এর আরনিং রিপোর্টগুলো প্রদর্শিত হবে।

১০)এখন আরকি কায শেষ এইবার ৮ টা Peyment অপশন থেকে যেটা ভাল লাগে অ্যাড করিয়ে নিন।
সবশেষে গুরুত্বপূর্ণ কাজ হলোঃ

মনে রাখবেন,উপরোক্ত সকল কাজগুলো সম্পন্ন হওয়ার পরে অবশ্যই ইউটিউব চ্যানেল এর ভিতর থেকে প্রতিটি ভিভিও
আবার নতুন করে মনিটাইজ করতে হবে।ভিভিও এর Edit এ যাওয়ার পরে মনিটাইজ অপশন এ ক্লিক করে “Usage Policy” অংশের “Monitize in all country” সিলেক্ট করে “Non-skippable video ads” and “Long non-skippable video ads”ফরম্যাটে গুলো চেক-মার্ক করে“Save Changes”বাটনে ক্লিক করতে হবে।এই পক্রিয়াটি শেষ করে ইউটিউব ড্যাশবোর্ড আরনিং প্রদর্শিত হবে।


এখন কথা হল এত সুযোগ সুবিদা দিয়ে “Scale lab” এর লাভ কি?

উত্তরঃ তারা ইউটিউব পাব্লিশারদের উচ্চ মাত্রার অর্জিত মুনাফা থেকে দৃঢ়তার সাথে শতকরা ৬৫/৩৫ ভাগ বিনিময় করে থাকে অর্থাৎ আপনি পাবেন টোটাল ইনকাম ৬৫ ভাগ।কিন্তু ভয় পাবার কিছুই নাই ওদের ৩৫ ভাগ কেটে নেয়ার পর ও যা থাকে তা গুগল অ্যাডসেন্স এর থেকে ২গুন/৩গুন বেশি হবে।তাদের আড়েক টি বিশেষ লাভ হোল আপনের ভিডিও কন্টেন্ট দিয়ে “Scale lab” Affiliate করতেসে এবং ভিবিন্ন company গুলোর সাথে চুক্তি করে তাদের Marketing করসে।

***তাহলে আর দেরি না করে আপনের চ্যানেলটি “Scale lab”- এর সাথে সংযুক্ত করে আপনের ইনকাম গুগল অ্যাডসেন্স ইনকাম থেকে কয়েক গুন বারিয়ে নিন। 

ScaleLab এ এপ্রোভাল না পেলে আমারা সাথে যোগাযোগ করতে পারেন,আমি এপ্রোভড করে দিব।।

প্রয়জনেঃ Skype: Sharifulbd002
                 Facebook: fb.com/shariful002
                 Phone: 01631316262
                 website: BDwOw.cOm

অনলাইনে কাজ পাচ্ছেন না ? কাজ করতে আগ্রহী হলে এই পোষ্টি আপনার জন্যে


Skype     : sharifulbd002
FB             : fb.com/shariful002
Group     : https://www.facebook.com/groups/incometipsbd/
Phone     : 01631316262
এই মাসে scaleLab এ আমার ইনকাম ঃ


স্কিল ল্যাব ইনকাম




Blogger + Affiliate মার্কেটিং করে অনলাইন থেকে আয় করার সহজ পদ্ধতি। প্রতিদিন ($১৮-$৩৬)

আজ আমি যেই বিষয় সম্পর্কে টিউন করব সেটা  হচ্ছে Affiliate মার্কেটিং।

আমরা সবাই জানি যে Affiliate মার্কেটিং করে আয় করতে হলে বিভিন্ন প্রোডাক্ট বিক্রি করতে হয় তার পর সে তার কাঙ্ক্ষিত কমিশন পায়। কিন্তু আজ আমি এমন একটা প্রোডাক্ট এর কথা বলব যেটা আপনার বিক্রয় করতে হবে না সুধু মাত্র সাইন আপ করাতে পারলে আপনি আপনার কমিশন পাবেন।
আপনি যদি প্রতিদিন  অন্তত ১ জন কে সাইন আপ করাতে পারেন তাহলে আপনি প্রতি দিন $১৮ পর্যন্ত আয় করতে পারবেন।

আপনি প্রতি সাইন আপ এর জন্য পাবেন

USA - $19
UK   -  $18
AUS - $18
Other - $5

প্রোডাক্ট সম্পর্কে

প্রোডাক্ট টি হলো নতুন মুভি,ভিডিও রিলেটেড।  আমরা জানি যে এমন কোনো লোক নাই যে নতুন নতুন মুভিই ডাউনলোড করতে ভালো না বাসে।
অনেকেই বলতে পারেন আপনি কি অনলাইনে এ পদ্ধতিতে আয় করেছেন। আমি বলব Yes আমি আয় করেছি এবং আপনি ও আয় করতে পারবেন ১০০% গেরান্টি সহকারে বললাম।  আমি আমার আয় করার স্ক্রিন শট সহ টিউটোরিয়াল টি বর্ণনা করব।

A to Z Tutorial

১. আপনার প্রথমে একটা ব্লগার এ একটা একাউন্ট খুলতে হবে।  এবং মুভি সম্পর্কিত একটা blogspot এ ব্লগ খুলতে হবে।
https://www.blogger.com ব্লগার ডট কম এ যান এবং একটি ফ্রী ব্লগস্পট ব্লগ খুলুন
ব্লগ টি মুভি রিলেটেড হতে হবে কেননা আমরা মুভি নিয়ে কাজ করব।।
নিচের চিত্রের মত করে টাইটেল এবং URL বেছে নিন:
ব্লগ সফল ভাবে খুলতে পারলে নিচের স্টেপ ফলো করুন
(আমার রেফার লিংক দেয়া হলো)
আপনি যদি আমার রেফার বেবহার করেন তাহলে আপনি আমার কাছ থেকে বিভিন্ন হেল্প পাবে। তাছাড়া আপনাকে কারনা -কারো রেফারে এখানে একাউন্ট ওপেন করতে হবে তা না হলে আপনি এখানে একাউন্ট approve করাতে পারবেন না।
*(আপনি সম্পূর্ণ  ফর্ম টি অতি সহজে পূরণ করতে পারবেন তারপরেও আমি কিছু  গুরুত্ব পূর্ণ  তথ্য দিছি।
 ফর্ম টি পুরুন করুন
Payment Information এর এখানে আপনি কিসের মাধ্যমে পেমেন্ট নিবেন সেটা সিলেক্ট করুন
পেপাল একাউন্ট থাকলে পেপাল ইমেইল দেন আর না থাকলে wire সিলেক্ট করে আপনার ব্যাংক একাউন্ট ইনফরমেশন দেন।
এর পর সাইন আপ সম্পর্ন করুন।
৩. এখন আপনার ব্লগে মুভি রিভিও টাইপের টিউন দেন।

৪. ব্যাস কাজ শেষ এখন  login করে Campaigns এ গিয়ে নতুন একটি Campaign করে নিচের পিকচারের মত করে এড কোড সংগ্রহ করুনঃ-

চিহ্নিত জায়গায় ক্লিক করুন


এড কোড টি কপি করুন
এড কোড টি কপি  করে প্রতিটি টিউনের মাঝ খানে বসিয়ে দিন। (HTML এ বসিয়ে দিবেন)
ব্যাস কাজ শেষ।।
এখন আপনার ব্লগে নিয়মিত টিউন করুন . আর ভিজিটর আনুন বেশি করে, যত বেশি ভিজিটর তত বেশি ইনকাম।।
আজ এই পর্যন্তই, কারও কোনো সমস্যা হলে আমাকে জানাবেন।
My skype: Sharifulbd002
*****************

সবচাইতে সহজ উপায়ে অনলাইনে আয় করুন আপনার সাইট থেকে Wapka সাইট হলেও হবে (Payout via Bkash,Bobil Recharge )

আমরা অনেকেই নিজের web/wap সাইট বানাই…এটা করি,সেটা করি।
সময় আর টাকা নষ্ট করি।যারা শত শত ডলার আয় করেন তারা এঈ পোষ্ট থেকে দূরে থাকুন…কেননা এটা দিয়ে শত শত ডলার আয় করা খুবই কষ্টকর তবে দক্ষ হলে অনেক আয় করতে পারবেন।
কিন্তু আপনারা চাইলে সহজেই অনলাইনে মজা করার পাশাপাশি আয়ও করতে পারবেন।
আর সবার আগে বলে নেই,আমি যে পধতিতে আয় করা শেখাব এইটা ১০০% কাজ করে…আর উপায় টা খুবই সহজ আর যেই সাইট থেকে করবেন তা বিশ্বস্ত বাংলাদেশী website(wap4dollar)

তাহলে চলুন কথা না বাড়িয়ে কাজ শুরু করে দেই…
যেহেতু সব দায়ভার আমি নিয়েছি,সেহেতু একদম clear করে step by stepদিচ্ছি যাতে কাজ করতে কোন সমস্যা না হয়।

নিয়মাবলিঃ
১.একটা IP থেকে একটাই account খোলা যায়(একাধিক খুললে ব্লক হবেন,ওই ডিভাইস দিয়ে আর আয় করতে পারবন না)
২.আপনার একটা web/wap সাইট থাকতেই হবে।web/wap সাইট এ ভিজিটর যত বেশী হবে আপনার পয়েন্ট তত বারবে।
৩.প্রতিটি web/wap সাইট visitor এর click এ আপনি পাবেন ১ পয়েন্ট ।একজন visitor ২৪ ঘন্টায় ১টাই ক্লিক করতে পারবে।
৪. ১৫০পয়েন্ট = ১ডলার ( ৭৮ টাকা)
৫.আপনি 0.15$ হলেই payout করতে পারবেন।
৬.আপনি আপনার ডলার/টাকা PayPal,Money bookers, Payza , B kash,Mobil Recharge এর মাধ্যমে তুলতে পারবেন ।
৭.কারো Referrral link দিয়ে account খুললেই আপনি পাবেন ২০ পয়েন্ট বোনাস ।
৮.আপনার Referrral এ কেউ account খুললে আপনিও পাবেন ২০পয়েন্ট। যতজন কে Referr করবেন তত ২০ পয়েন্ট পাবেন।
৯.Request Payout করার পর ২৪ ঘন্টার মধ্যে আপনি টাকা/ডলার পেয়ে যাবেন।
১০.আইপি হাইড করে ক্লিক করলে সেই ক্লিক গ্রহনযোগ্য হবেনা।
কাজের ধাপঃ
১. প্রথমে   এখান থেকে  সাইন আপ করুন।




Tick দেওয়া গুলো অবশ্য পূরন করতে হবে


registration complete হলে সাইন ইন করলে এই রকম আসবে।



(ক,খ,গ,ঘ,ঙ,চ এর বিবরন নিচে এক এক করে দিলাম)

এখানে,

=আপনার পয়েন্ট(প্রথম registration complete হলে ২০পয়েন্ট হয়ে থাকবে)
=Publisher ADlink  html code যেটার যে কোন একটি আপনার web/wap site এ দিতে হবে…আপনি ব্যানার ও দিতে পারেন।
তবে আমি একটা Textlink ad code +যে কোন একটা ব্যানার দেওয়াই better মনে করি।






গ=refferal link
আপনি কাউকে রেফার করেতে চাইলে এই লিঙ্ক দিয়ে বা web/wap সাইটে  html কোড দিতে পারেন…আপনার Referral এ কেউ account খুললে আপনিও পাবেন ২০পয়েন্ট। যতজন কে Referr করবেন তত ২০ পয়েন্ট পাবেন।যেমন আপনি আমার Referr এ হলে আমি ২০পয়েন্ট পাবো।


=Earning Statistics
এখানে আপনি আপনার পয়েন্ট,আপনার ভিজিটরদের ক্লিক দেখতে পারবেন।



ঙ=Request Payout
আপনি এভাবে পে আউট করতে পারবেন।Request Payout করার পর ২৪ ঘন্টার মধ্যে আপনি টাকা/ডলার পেয়ে যাবেন।আপনার 0.15$ হলেই Request Payout দিতে পারবেন।।




=Payout History
আপনি আপনার payout এর সব history দেখতে পাবেন।
আশা করি সব বোঝাতে পারলাম।
এভাবে আপনি সবচাইতে সহজ উপায়ে অনলাইনে আয় করতে পারেন।
এজন্য আপনাকে সুন্দর একটা web/wap সাইট বানাতে হবে।আর আগে থেকে থাকলে তো কথাই নাই। wapka.mobi তেও হবে।
আপনার রেফারে যত বেশি মানুষ সাইন আপ করে সব কাজ শেষ করে ১০ পয়েন্ট আয় করবে কেবল তখনই আপনি সাথে সাথে ২০পয়েন্ট পাবেন।কাজেই যত বেশি রেফার তত আয়।
তবে লোভে পড়ে যেন আবার একটা ডিভাইস থেকে একাধিক আইডি খুলে নিজেকেই রেফার করবেন না।তাইলেই ধরা খাইবেন,এডমিন আপনাকে ব্লক করে দিবে আর আপনার আর আয় করা লাগবে না .


কোন সমস্যা হলে আমার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন

Email : incometipsbd@gmail.com

Facebook Group

Trafficmonsoon থেকে দৈনিক 10$ আয়ের উপায়




এর আগে আপনাদেরকে Traffic monsoon সম্পর্কে ধারনা দিয়েছিলাম। অনেকে হয়ত কাজ করছেন আবার অনেকেই হয়ত ভাবছেন কিভাবে কাজ করব। তাই আজ আপনাদেরকে sign up করা এবং কিভাবে কাজ করে দৈনিক 10$ আয় করা যায় সে সম্পর্কে বলব।

sign up করাঃ প্রথমে এখানে click করুন তাহলে সরাসরি registration পেজ ওপেন হবে।





আপনার নাম এবং মোবাইল নাম্বার লিখুন । আপনার ইমেইল লিখুন। অবশ্যই yahoo অথবা gmail ব্যবহার করবেন। তারপর আপনার ইচ্ছামত username দিন। এখন আপনাকে একটি withdraw code দিতে হবে। এটি একটি pin code এর মত যখন money withdraw করবেন তখন এটি দিতে হবে। আপনার ইচ্ছামত একটি code দিন। তবে সংখ্যা এবং অক্ষর মিলিয়ে দিতে হবে যেমনঃ tmson456

এরপর আপনার paypal-এর ইমেইল টি লিখুন। যদি আপনার paypal account না থাকে তাহলে একটি account খুলে নিন। যেহেতু বাংলাদেশে paypal support করে না তাই অন্য দেশের ঠিকানা দিয়ে খুলে নিন। আপনি paypal-এ withdraw করতে পারবেন এবং সেটি online-এ খরচ করতে অথবা বিক্রি করতে পারবেন। এজন্ন্য account verified হবার দরকার নেই। এখানে অবশ্য আপনি payza অপশন দেখতে পাচ্ছেন কিন্তু আসলে payze  তে আপনি Traffcimonsoon থেকে টাকা তুলতে পারবেন না । যদি আপনি এখানে টাকা invest করেন তাহলে পারবেন। যেহেতু আমরা কোন টাকা invest করবো না সেহেতু paypal ব্যবহার করব। এখন registration ফর্ম টি sumit করার পরে আপনার ইমেইলে একটি মেইল আসবে যেখানে click করে আপনার আকাউন্ট টি  active করতে হবে।

কি কাজ করবেনঃ আপনার আকাউন্টে ঢুকলে আপনি cash link দেখতে পাবেন। এই cash link গুলো click করলেই আপনার আকাউন্টে টাকা জমা হবে।



চিত্রে দেখতে পাচ্ছেন কি করতে হবে।



কিভাবে দৈনিক 10$ আয় করা যায়ঃ নিচের হিসাবটি দেখুনঃ
 Your Daily Earning = $0.1
1 Referral = $0.1 Daily Earning 
100 Referrals = $10 Daily Earning
1000 Referrals = $100 Daily Earning
আশা করি বুঝতে পারছেন কিভাবে দৈনিক 10$ আয় করা যায়। এখন আপনি যত referral বানাবেন তত গুন আয় করতে পারবেন।
আমার ইনকামঃ আমিও কয়েকবার টাকা withdraw করেছি। কিছু screenshot দিলামঃ












মনে রাখবেনঃ  যতদিন free ইনকাম করা যায় ততদিন আপনার লাভ। কারন এখানে দৈনিক ১০মিনিট সময় দিলেই হবে। সর্বনিম্ন 2$ হলেই আপনি তুলতে পারবেন। এছাড়া এরা instant payment দেয় অর্থাৎ আপনি withdraw request করার সাথে সাথেই আপনার paypal/payza আকাউন্টে টাকা চলে যাবে।

যেকোন প্রয়োজনে আমার সাথে যোগাযোগ করতে পারেনঃ
skype:sharifulbd002
email: incometipsbd@gmail.com
facebook group: https://www.facebook.com/groups/incometipsbd/