কিছু কথা



এই সাইটে দেয়া সকল ইনকাম করার টিপস,প্রক্রিয়া/পদ্ধতি ও এখানে দেয়া ইনকাম করার সাইট সব বিশ্বস্ত । এখানে কোন ভুয়া টিপস বা সাইট নিয়ে পোষ্ট করা হয় না ।। ইনকাম করার সকল পদ্ধতি এখানে শিখানো হবে এবং সেই পদ্ধতি গুলো ১০০% সত্যি । যে সাইট গুলো সত্যি পেমেন্ট দেই শুধুমাত্র সেই সাইট গুলো থেকে কিভাবে ইনকাম করবেন তা নিয়ে এখানে পোষ্ট করা হয়। তাই এখানকার সকল ইনকাম করার রাস্তা আপনি নির্দিধায় অনুশরন করতে পারেন।

কোন সমস্যায় পরলে কমেন্ট করবেন, আর ছোট খাট হেল্প এর জন্য আমার দেয়া রিফারেল লিংক দিয়ে সকল ইনকাম করার সাইটে রেজিস্ট্রেশন করবেন ।
***নতুন নতুন ইনকাম করার ওয়ে শিখতে আমাদের সাথেই থাকুন।

Home » , » পেপাল সম্পর্কিত বাংলাদেশি ব্যবহারকারিদের কিছু প্রশ্নের উত্তর

পেপাল সম্পর্কিত বাংলাদেশি ব্যবহারকারিদের কিছু প্রশ্নের উত্তর

পেপাল সম্পর্কিত বাংলাদেশি ব্যবহারকারিদের কিছু প্রশ্নের উত্তর


পেপাল বাংলাদেশ এ এই বছরের শেষের দিকে আসার কথা। আসুক বা না আসুক পেপাল আমাদের ব্যবহার করতে হবে অনেক কারনেই। কারণ গুলো নিশ্চয় জানা সবার তাই আর বললাম না।






এইবার আসি বাংলাদেশ এবং অন্যান্য নন সাপোর্টটেড পেপাল দেশগুলোর ব্যবহারকারিদের কিছু প্রশ্ন এবং  উত্তরে –

১) পেপাল কি বাংলাদেশে আছে বা সাপোর্ট করে ?

উত্তরঃ না, তবে পেপাল আসছে।

২) আমার দেশ যদি পেপাল সাপোর্ট না করে তাহলে কি আমি পেপাল ব্যাবহার করতে পারবো ?

উত্তরঃ হ্যাঁ, পারবেন। সীমিত আকারে এবং বিভিন্ন সীমাবদ্দতার মাঝে পেপাল ব্যবহার করা যাবে।

৩) পেপাল অ্যাকাউন্ট খোলার সময় দেখি আমার দেশ লিস্ট এ নাই, এখন আমি কোন দেশ সিলেক্ট করবো ?

উত্তরঃ দেশ হিসাবে আপনি যেকোনো দেশ সিলেক্ট করতে পারেন। তবে এইখানে কিছু কথা আছে। যদি আপনি বাংলাদেশ এর মত অসমরতিত দেশ থেকে হয়ে থাকেন তাহলে পেপাল অ্যাকাউন্ট ভেরিফাই করতে পারবেন না। এইজন্য দেশ একটি বড় বিষয়। এর যদি ভেরিফিকেশন ছাড়াই পেপাল ব্যবহার করতে চান তাহলে যে সকল দেশ ভেরিফিকেশন ছাড়াই পেপাল ব্যাবহার করতে অনুমতি দেই (যেমন – ফ্রান্স) টা সিলেক্ট করতে পারবেন।


৪) পেপাল ভেরিফিকেশন কি, কিভাবে করতে হয় ?

উত্তরঃ এটি একটি ভেরিফিকেশন প্রসেস যা পেপাল এর সম্পূর্ণ বা বেসিক ফাংশনগুলো ব্যাবহারের জন্য প্রয়োজন। ভেরিফিকেশনএর জন্য সাধারণত পেপাল অ্যাকাউন্ট এর সাতে ব্যাবহারকারীর ক্রেডিট কার্ড অথবা ব্যাংক অ্যাকাউন্ট সংযুক্ত করতে হয়।

৫) কিভাবে আমি একটি ভেরিফাইড পেপাল পেতে পারি ?

উত্তরঃ আপনার যদি কোন বন্ধু বান্ধব বা আত্মীয় স্বজন পেপাল সাপোর্টটেড কান্ট্রি তে থেকে থাকেন তাহলে তার আপনার জন্য একটি পেপাল অ্যাকাউন্ট খুলে ভেরিফাই করে দিতে পারবেন।  এছাড়া অনলাইনে ভার্চুয়াল ক্রেডিট কার্ড কিনতে পাওয়া যাই।। যা ব্যাবহার করে ও আপনার অ্যাকাউন্ট ভেরিফাই করতে পারবেন। তবে প্রতারক থেকে সাবধান।

৬) বাংলাদেশ কেন পেপাল সাপোর্ট করে না ?

উত্তরঃ শুধু বাংলাদেশই না যেসব দেশ অনলাইন মানি ট্রান্সফার সাপোর্ট করে না সেসব দেশে পেপাল নাই।

৭) পেপাল এর বিকল্প পেমেন্ট সিস্টেম গুলো কি কি ?

উত্তরঃ পেপাল এর বিকল্প পেমেন্ট সিস্টেম যা বাংলাদেশ সাপোর্ট করে সেগুলো হল – মানিবুকারস, অ্যালারটপে/পাইজা, লিবার্টি রিজারব, ই-গোল্ড, ওয়েবমানিসহ আরও কিছু সিস্টেম।

৮) আমি কি পেপাল থেকে পেপাল এর বিকল্প সিস্টেমে অর্থ লেনদেন করতে পারবো ?

উত্তরঃ না, সরাসরি পারবেন না। তবে অনলাইনে কিছু কারেঞ্ছি একচেঞ্জার আছে যারা এক সিস্টেমের কারেঞ্চি নিয়ে আপনার চাহিদা মতো কারেঞ্চি সরবরাহ করে থাকে তাঁদের মাধ্যমে পারবেন।

৯) Payoneer – এর US Payment Service কি ?

উত্তরঃ এটি একটি ভার্চুয়াল ব্যাংক সার্ভিস, যা ব্যাবহার করে আপনি যুক্তরাষ্ট্রের যে কোন কোম্পানি থেকে সরাসরি পেমেন্ট নিতে পারবেন এবং Payoneer  মাষ্টার কার্ড ব্যাবহার করে অর্থ উথলন করতে পারবেন।  এটি দিয়ে পেপাল অ্যাকাউন্ট ও ভেরিফাই করা যাই।

১০) Payoneer – এর US Payment Service কিভাবে পাব ?

উত্তরঃ আপনার যদি একটি Payoneer মাষ্টার কার্ড থাকে তাহলে Payoneer কাস্তমার সাপোর্টের সাতে যোগাযোগ করে US Payment Service এর জন্য আবেদন করুন।

সব শেষে  একটা কথাই বলতে চাই – আমরা বাংলাদেশিরা কোনরকম ঝামেলা ছাড়াই পেপাল ব্যাবহার করতে চাই।

All Payments Methods

আপনারা যদি অনলাইন ইনকাম সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে চান তাহলে Online Income Tips এর সাথেই থাকুন  পারেন।


কোন সমস্যা হলে আমার সাথে যোগাযোগ করুন Email : incometipsbd@gmail.com

অথবা Facebook Group



0 comments:

Post a Comment